বগুড়া সংবাদ ডটকম (কাহালু প্রতিনিধি এম এ মতিন) : বুধবার বগুড়ার কাহালুর কর্নিপাড়া বাজারে কালাই ইউ পি চেয়ারম্যান আবু তাহের সরদার (হান্নান) এর নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও বেলা ১১টা হতে দুপুর ১২টা পর্যন্ত মানব বন্ধন করেন উপকারভোগী ও এলাকাবাসী। মানব বন্ধনে অংশগ্রহণকারী উপকারভোগীরা জানান, অনেক উপকারভোগী তাদের ভিজিডি কার্ডের চাল বিক্রি করেছে। ইউ পি চেয়ারম্যান হান্নান কোন চাল আত্নসাৎ করেননি এবং চাল কেনার সাথে তিনি জড়িত নয়। স্থানীয় রমজান আলী নামে ব্যক্তির কাছে আমরা চাল বিক্রি করেছি। রমজান আলী চেয়ারম্যানের গুদাম ঘর ও চাতাল ভাড়া নিয়ে ব্যবসা করে আসছিল। আমাদের বিক্রিকৃত চাল রমজান আলী সেখানে রাখেন। তারা আরও জানান, একটি কু-চক্রী মহল চেয়ারম্যানের জনপ্রিয়তা ও ভাবমুর্তি নষ্ট করার জন্য তাকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়েছে। তারা অভিলম্বে ইউ পি চেয়ারম্যান হান্নানের নিঃশর্ত মুক্তির দাবী করেন এবং প্রকৃত দোষীদের খোঁজে বের করে তাদের শাস্তির ব্যবস্থায় জোরদাবী জানান। উক্ত বিক্ষোভ মিছিল ও মানব বন্ধনে উপস্থিত ছিলেন কালাই ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি জাহিদুল ইসলাম, কালাই ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি হেলালুর রহমান লিটন, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক সাব্বির হোসেন, ইউ পি সদস্য নমিতা রানী, আবু তালেব, জামাল হোসেন, সাবেক ইউ পি সদস্য আব্দুল হাই গনি, গন্যমান্য ব্যক্তির মধ্যে আলহাজ্ব তছলিম উদ্দিন, বাচ্চু প্রাং, সন্তোস কুমার, আমিনুল সরদার, ফিরোজ সরদার রুমন, শাহ আলম, আকরাম, বিদ্যুৎ, মোকলেছার রহমান, রাজ্জাক, জহুরুল ইসলাম সহ ইউনিয়নের প্রায় ৮/৯শত উপকারভোগী মহিলা ও এলাকার জন সাধারন এর মধ্যে অধিকাংশ নারী/পুরুষ কেঁদে ফেলেন। উল্লেখ্য যে, মঙ্গলবার দুপুরে কাহালু উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আরাফাত রহমান এর নেতৃত্বে বগুড়ার ডিবি পুলিশ এ অভিযান চালিয়ে কালাই কর্ণিপাড়া বাজারে অবস্থিত চেয়ারম্যানের গুদাম ঘর থেকে ২’শ ৪৩ বস্তা ভিজিডি এর চাল জব্দ করে এবং চেয়ারম্যান হান্নানকে আটক করে। রাতেই উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা বাদী হয়ে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কাহালু থানায় মামলা দায়ের করেন। বুধবার সকালে কাহালু থানা পুলিশ তাকে আদালতে প্রেরণ করে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন