বগুড়া সংবাদ ডট কম (ধুনট প্রতিনিধি ইমরান হোসেন ইমন) :বগুড়ার ধুনট উপজেলায় পৃথক অভিযান চালিয়ে ২৭০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ এক নারী মাদক ব্যবসায়ী ও দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক পলাতক আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো মথুরাপুর ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী রানু খাতুন (৩২) ও চিকাশী ইউনিয়নের বড়িয়া গ্রামের শাহ আলীর ছেলে তাহেরুল ইসলাম (৩৫)। সোমবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পৃথক অভিযান চালিয়ে নিজ নিজ বাড়ী থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।
থানাসূত্রে জানাগেছে, গ্রেফতারকৃত রানু খাতুনের স্বামী জামাল উদ্দিন ঢাকা-কক্সবাজার সড়কের একটি কোচের সুপারভাইজার হিসেবে কর্মরত আছে। সে কক্সবাজার এলাকা থেকে ইয়াবা ট্যাবলেট এনে দীর্ঘদিন যাবত নিজ বাড়ীতে তার স্ত্রী রানু বেগম ও তার ছোট ভাই শফিকুল ইসলামকে দিয়ে মাদক ব্যবসা করে আসছিল। সোমবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ২৭০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ রানু খাতুনকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তার স্বামী জামাল উদ্দিন ও দেবর শফিকুল ইসলাম পালিয়ে যায়। এঘটনায় গ্রেফতারকৃত রানু খাতুন সহ তার স্বামী জামাল উদ্দিন ও দেবর শফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে ধুনট থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
অপরদিকে ২০১৪ সালে সারিয়াকান্দি উপজেলার মালিনডাঙ্গা গ্রামের মিন্টু প্রামানিকের মেয়ে টপি খাতুন বাদী হয়ে স্বামী তহেরুল ইসলামের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় শুনানী শেষে তাহেরুল ইসলামকে ২ বছরের কারাদন্ড প্রদান করে আদালত। কিন্তু এরপর থেকেই সে পলাতক ছিল।
ধুনট থানার এসআই খোকন কুন্ডু জানান, ইয়াবা সহ এক নারী মাদক ব্যবসায়ী ও এক সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামীকে গ্রেফতারের পর মঙ্গলবার দুপুরে তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন