বগুড়া সংবাদ ডট কম  : বর্তমান ভোটার বিহীন অবৈধ সরকার রাজনৈতিক ভাবে মোকাবেলা করতে না পেরে তারেক রহমানকে নিয়ে মিথ্যাচার আর নানা রকমের দেশী-বিদেশী ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে। আদালতকে প্রভাবিত করে তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা রায় প্রকাশ করিয়েছে মন্তব্য করে বিএনপি চেয়ারপারসন’র উপদেস্টা মন্ডলীর সদস্য ও বগুড়া পৌর মেয়র এড.এ.কে.এম.মাহবুবর রহমান বলেছেন তারেক রহমান তাঁর বাবার মতই দেশ প্রেমিক। দেশের সকল প্রান্তে তাঁর উন্নয়নের ছোঁয়া রয়েছে। তিনি শুধু ১৬ কোটি মানুষের নেতাই নন, তিনি একটি প্রতিষ্ঠান। তাঁর আকাশ ছোঁয়া জনপ্রিয়তাই আ’লীগের কাল হয়েছে। তাই ১/১১’র প্রেতাত্মাদের দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্য তাকে নির্মম নির্যাতন করে শেষে বিদেশে নির্বাসিত করতে বাধ্য করা হয়েছে। বিএনপির এই প্রবীণ নেতা আরও বলেন, জনগন তারেক রহমানকে কাছে পাবার জন্য উন্মুখ। আগামী দিনে তিনিই বাংলার মসনদে বসবেন ইনশাল¬াহ। তাঁর বিরুদ্ধে সকল ষঢ়যন্ত্র কারীদের রাজপথে যুবদল প্রতিহত করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। বগুড়া জেলা যুবদলের আয়োজনে আলোচনা সভায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন। জেলা যুবদলের সভাপতি ও কাউন্সিলর সিপার আল বখতিয়ার’র সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও বগুড়া জেলা বিএনপি’র সাধারন সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন, সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা, সিনিঃসহ-সভাপতি ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল। বিএনপির সিনিঃ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ১০ম কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে গতকাল সোমবার বিকেলে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্য সিপার বলেন, গনতন্ত্রের নামে লেবাজধারী আ’লীগ সরকারের অবৈধ মুখোশ বিচার বিভাগ উন্মোচন করেছে। বিচার বিভাগ নিয়ে নোংরা রাজনীতি দেশবাসী মানবে না। জনগন এ সরকারকে ধিক্কার জানিয়েছে। ক্ষমতার মসনদ কাঁপছে বলেই তারা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নেতৃত্বে জনগণকে সাথে নিয়ে দূর্বার গণ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে আগামী নির্বাচনে গনতান্ত্রিক সরকার-বিএনপির সরকার প্রতিষ্ঠা করা হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। বক্তব্য রাখেন সদর থানা যুবদল সভাপতি রাফিউল ইসলাম রুবেল, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সান্টু, যুবনেতা অধ্যক্ষ শাহীন, আব্দুল বারী, সুরুজ, শামীম, এম.এ হান্নান, মিঠু। এসময় উপস্থি ছিলেন খান আলতাফ, রাজা, জাহেদ, জনি, সেলিম রনি, মিলন, বাপ্পি, ইঞ্জিঃ জিয়াউল ইসলাম আপেল, কামাল পাশা, সেলিম, মাহবুব, রুবেল, খলিল, রোকন, সোহেল, সোবাহান, মিনার, মিনহাজুল ইসলাম নান্নু, মিস্টার, চেরু, শাকিল, রানা, বাবু, মামুন, সঞ্জয়, রিপন, মমি, হাসান, সম্পদ, রাসেল, চাঁন, সোনা মিয়াসহ বিভিন্নপর্যায়ের নেতৃবৃন্দ। সভা শেষে সিনিয়র শহর যুবদল নেতা জহুরুল ইসলাম ফুয়াদ’র নেতৃত্বে শহীদ জিয়ার আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে বিভিন্ন দলের শতাধিক নেতা-কর্মী সোহেল, সজিব, ইসরাইল, শিবলুসহ শতাধিক নেতাকর্মী প্রধান অতিথির হাতে ফুল দিয়ে যুবদলে যোগদান করে। এর আগে ঈদের ২য় দিন নেতাকর্মীদের সাথে দলীয় কার্যালয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন জেলা যুবদল সভাপতি সিপার আল বখতিয়ার। খবর বিজ্ঞপ্তির।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন