বগুড়া সংবাদ ডট কম (শাজাহানপুর প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান) : বগুড়ার শাজাহানপুরে এসএম আসাদুল ইসলাম (৫৯) নামে বগুড়া ক্যান্টনমেন্টে কর্মরত একজন সেনা কর্মকর্তার (এএফসি) বসতবাড়ির তালা ভেঙ্গে দূর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় সেনা কর্মকর্তা এসএম আসাদুল ইসলাম বাদি হয়ে সোমবার শাজাহানপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ও বগুড়া র‌্যাব-১২ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
সেনা কর্মকর্তা এসএম আসাদুল ইসলাম জানান, উপজেলার ফুলদিঘী উত্তরপাড়া গ্রামে তার নিজ বসতবাড়িতে মেয়ে-জামাইকে রেখে গত শুক্রবার স্ত্রীকে নিয়ে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় যান। ঢাকায় অবস্থানকালে অসুস্থ্য নাতনিকে ডাক্তার দেখাতে তার মেয়ে রোববার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বাড়ি-ঘরে তালা লাগিয়ে শহরের পিটিআই মোড়ে ডাক্তার খানায় যায়। ডাক্তার দেখিয়ে রাত ৮টার দিকে বাড়িতে ফিরে ঘরের দরজার তালা ভাঙ্গা এবং ঘরের ভিতরে ঢুকে জানালার গ্রীল ও স্টিল আলমারির তালা ভাঙ্গা দেখতে পায়। আলমারিতে থাকা যাবতীয় জিনিসপত্র এলোমেলো অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে খোঁজ নিয়ে জানা যায় আলমারির ভিতরে থাকা নগদ ৩ লক্ষ টাকা, ২ লক্ষ টাকার প্রাইজবন্ড, ৫ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা মূল্যের ১২ ভরি ওজনের স্বর্ণের গহনা, জমির বায়না দলিল, ৮৫ হাজার টাকা মূল্যের হীরের গহনা, ৩৫ হাজার টাকা মূল্যের ১টি ডিজিটাল ক্যামেরা, ১৫ হাজার টাকা মূল্যের ২টি মোবাইল ফোন সহ মোট ১১ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকার মালামাল চুরি হয়ে গেছে।
থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, চুরি হয়ে যাওয়া মালামাল উদ্ধার এবং অপরাধীদের গ্রেফতারে জোর চেষ্টা চলছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন