বগুড়া সংবাদ ডট কম(শিবগঞ্জ প্রতিনিধি রশিদুর রহমান রানা): বগুড়ার শিবগঞ্জে ১০ বছরের শিশুকে কুপিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠেছে আপন চাচীর বিরুদ্ধে। মৃত শিশুর নাম সাকিব হাসান(১০)। সে শিবগঞ্জ উপজেলার দেউলি ইউনিয়নের বোয়ালমারী গ্রামের হেলাল মিয়ার পুত্র। শুক্রবার বেলা ১২টার সময় এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শিশু সাকিব পার্শ্ববর্তী মাঠে খেলাতে গেলে সেখানে তার আপন চাচা বেলালের স্ত্রী (চাচী) শিউলি বেগম(৩৮) তার মুখে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারী ভাবে কোপাতে থাকলে একপর্যায়ে মৃত্যু হয় শিশু সাকিবের। ঘটনাটি টেরপেয়ে এলাকাবাসীরা ছুটে এসে শিশু সাকিবকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায়। তবে অভিযুক্ত চাচী মানষিক অসুস্থ বলে দাবি করেছে তার পরিবার। মাঝে মধ্যই তিনি পাগলী হন বলে জানায় স্থানীয়রা। এঘটনা জানার পর নিহত শিশু সাকিকের নানীর বাড়ির এলাকার লোকজন চাচী শিউলি বেগমের বাড়ি ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে মোকামতলা পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পওে নিহত শিশুকে উদ্ধার ও চাচি শিউলি বেগমকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসার সময় সময় স্ট্রোক করে রাস্তার মধ্য মোকামতলা পুলিশ ফাঁড়ির কনস্টেবল একরামুল হক(৫০) মারা যায় এব্যাপাওে জানতে চাইলে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিদ মাহমুদ খান জানায় শিশুটিকে উদ্ধার করে পুলিশ থানায় নিয়ে আসার সময় আমাদের এক পুলিশ কনস্টেবল স্ট্রেক করে মারা যায় বলে নিশ্চিত করেন তিনি। তিনি আরো জানান তার চাকুরীর মেয়াদ ছিল মাত্র এক বছর। এ ঘটনায় পুলিশদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Facebook Comments (ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন)

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
আপনার নাম লিখুন